,

সংবাদ শিরোনাম :

যশোরে ভুয়া পুলিশ সন্দেহে ৩ কনস্টেবলকে গণপিটুনি

রাজিবুল হাসান নাজমুল যশোর ব্যুরো : যশোরের ঝিকরগাছায় ভুয়া পুলিশ সন্দেহে তিন কনস্টেবলসহ চারজনকে গণপিটুনি দিয়েছে গ্রামবাসী। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার মাটিকুমড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গণপিটুনির শিকাররা হলেন, তিন ডিবি কনস্টেবল মুরাদ হোসেন, শিমুল হোসেন ও মামুন আলী এবং প্রাইভেট কার চালক শাওন। আহতদের যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। যশোরের পুলিশ সুপার মঈনুল হক ব্রিফিংকালে জানান, বৃহস্পতিবার রাতে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার মাটিকুমড়া গ্রামে এক মাদক বিক্রেতাকে ধরতে অভিযানে যায় গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। কিন্তু ডিবি পুলিশকে ভুয়া মনে করে গ্রামের লোকজন মাইকে ঘোষণা দিয়ে জড়ো হয়ে পুলিশের ওপর ঝাপিয়ে পড়ে। গণপিটুনিতে আহত হন তিন ডিবি কনস্টেবল ও প্রাইভেট কার চালক। পরে পুলিশ খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। মঈনুল হক আরও জানান, আইনশৃঙ্খলার বিঘœ ঘটাতে কোনো চক্র পরিকল্পিতভাবে এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে কিনা পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে।
যশোরের কেশবপুরের বিদ্যানন্দকাটী ইউনিয়নে সাড়ে তিন বছরে প্রায় তিন কোটি টাকার উন্নয়ন সাধিত

রাজিবুল হাসান নাজমুল যশোর ব্যুরো : যশোরের কেশবপুর উপজেলার ৪ নং বিদ্যানন্দকাটী ইউনিয়নে সামাজিক ও গ্রামীণ অবকাঠামোসহ বিভিন্ন সেক্টরে গত সাড়ে তিন বছরে প্রায় তিন কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হয়েছে। বিদ্যানন্দকাটী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যন আমজাদ হোসেনের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এবং স্থানীয় সাংসদ মাননীয় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্র ইসমাত আরা সাদেক’র পরোক্ষ ও প্রতক্ষ্য সহযোগিতায় ঐ ইউনিয়নের অতিদরিদ্রদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি, ১ শতাংশ’র অর্থ বিনিয়োগের মাধ্যমে এলাকার দরিদ্র মানুষের আর্থসাজিক উন্নয়ন, এলজিএসপি-২, এলজিএসপি-৩, কাবিটা/কাবিখা, টিআর, এডিবি, জাইকাসহ প্রায় ৫০টি প্রকল্পের মাধ্যমে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের গ্রামীণ অবকাঠামো রাস্তা ব্রিজ, কালভার্ট, স্কুল মাদ্রাসা, এতিমখানা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন সেক্টরে গত সাড়ে তিন বছরে ২ কোটি ৬৩ লক্ষ ৮২ হাজার ৬৬৪ টাকার উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সংস্কার, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সিলিং ফ্যান বিতরণ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল হাজিরা সিস্টেম বিতরণ ও অটোমেশন সরবরাহ, মেধাবী শিক্ষার্থীদের বই ও বাই সাইকেল বিতরণ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ও জনগুরুত্বপুর্ণ স্থানে সোলার প্যানেল স্থাপন, ক্রীড়া উন্নয়ন ও গ্রাম আদালতের এজলাস নির্মান, গ্রাম ও শহরের সঙ্গে সহজ যোগাযোগ ব্যাবস্থা সৃষ্টির লক্ষে ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে রাস্তা ইটের সলিংকরণ, বিভিন্ন জলাবদ্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠ ভরাট ও বন্যা নিয়ন্ত্রন ভেড়ীবাঁধ নির্মবনসহ বিদ্যানন্দকাটী ইউনিয়নে গত সাড়ে তিন বছরে প্রায় ৩ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন হয়েছে। চলমান রয়েছে আরো প্রায় অর্ধকোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প। যা অচিরেই শেষ হবে বলে আশা করছেন ঐ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন। তিনি আরো বলেন আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়ন দেশের অবহেলিত জনগোষ্ঠির হাতের নাগালে পৌছে গেছে। সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে আগামী ৫ বছরে উন্নয়নের জোঁয়ারে দেশ ভরে যাবে।

যশোরে উদ্ধার কিশোরী সেল্টার হোমে

রাজিবুল হাসান নাজমুল যশোর ব্যুরো : আয়েশা আক্তার নুপুর নামে ১৬ বছরের এক কিশোরীকে উদ্ধার করেছে যশোর কোতয়ালি থানা পুলিশ। বুধবার রাতে তাকে উপশহর খাজুরা বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়। কিন্তু তিনি তার পিতার নাম বা বাড়ির ঠিকানা সঠিকভাবে বলতে পারছেন না। কথাবার্তা এলোমেলো হওয়ার তাকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলে মনে করছে পুলিশ। তাকে ঢাকা আহসানিয়া মিশনের যশোরের সেল্টার হোমে পাঠানো হয়েছে
কোতয়ালি থানার শিশু ডেস্ক ইনচার্জ এসআই হাবিবুর রহমান বলেছেন, ‘থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই আমিরুজ্জামান বুধবার রাতে উপশহর খাজুরা বাসস্ট্যান্ড এলাকার একটি কাউন্টারের সামনে থেকে নুপুরকে উদ্ধার করেন। সে ঢাকা থেকে একটি বাসযোগে যশোরে আসে। নড়াইলে যাবে বলে স্থানীয়দের জানায়। কিন্তু কোথায় যাবে, কার কাছে যাবে এই বিষয়ে কোন কথা বলতে পারছে না। ফলে স্থানীয়রা পুলিশের কাছে তাকে সোপর্দ করে।’
তিনি আরো বলেছেন, ‘বৃহস্পতিবার সকালে তার কাছে জিজ্ঞাসা করা হলে সে উল্টোপাল্টা বলতে থাকে। তার নাম ছাড়াও সৎ পিতার নাম রফিকুল ইসলাম বলে জানায়। ঢাকার মিরপুর ছাড়া অন্য কিছু বলতে পারে না। তার কাছে একটি মোবাইল ফোন আছে। কিন্তু ওই ফোনে কোন নম্বর নেই। সঠিক ভাবে পরিচয় বলতে না পারায় তাকে ছাড়া হয়নি। পুলিশের পক্ষ থেকে তার পরিচয় সঠিক ভাবে জানার চেষ্টা চলছে। সকালে তাকে ঢাকা আহসানিয়া মিশনের সেল্টার হোমে পাঠানো হয়েছে। ওই সেল্টার হোমের প্রবেশন অফিসার, আইনজীবী তাহমিদ আকাশসহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *