,

সংবাদ শিরোনাম :

যশোরের শহরের ফুটপাতগুলি দখল : দেখার কেউ নেই

মীর রাজিবুল হাসান নাজমুল যশোর ব্যুরো: যশোরে প্রশাসনের নাকের ডগায় শহরের বিভিন্ন সড়কের ফুটপাত দখল করে গাড়ি পার্কিং করা হচ্ছে। এছাড়া রাখা হচ্ছে বিভিন্ন ব্যবহার সামগ্রী। এতে জনসাধারনের চলাচলে পাশাপাশি ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। অথচ এব্যাপারে ন্যূনতম নজরদারি টুকু নেই প্রশাসনের এমন অভিযোগ স্থানীয়দের। যশোর-খুলনা মহাসড়কের বকচর, মণিহার, শিক্ষা বোর্ড, খাজুরাস্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ও ব্যস্ততম সড়কের ফুটপাতে রাখা হচ্ছে সারি সারি গাড়ি। কোথাও রাখা হয়েছে বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী। শুধু মহা সড়কেই নয়; যশোর-মাগুরা, যশোর-বেনাপোল, যশোর-সাতক্ষীরা, যশোর-ঝিনাইদহ মহাসড়কসহ ১৭টি রুটের চিত্রই একই। ফলে সড়কগুলো সংকীর্ণ হয়ে একদিকে যেমন যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে, অপরদিকে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। যশোর সদর হাসপাতালের তথ্য অনুযায়ী, গত এক বছরে নিহত হয়েছেন সড়ক দূরঘটনায় ৮৭ জন। শুধু যশোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন ৩ হাজার ৬২ জন। স্থানীয়রা জানান, ফুটপাত দখল করে রাখা হচ্ছে গাড়ি নির্মাণসামগ্রী। ফলে অনেক সময় ঘটছে দুর্ঘটনা। যত্রতত্র গাড়ি পার্কিংয়ের ফলে সড়কে সৃষ্টি হচ্ছে যানজট। যা দেখার যেন কেউ নেই এমন মন্তব্য ভূক্তভোগীদের। অনেকে দোকানের সামনে মালামাল রাখার কারণেও ফুটপাত দখল হয়ে রয়েছে। ফলে এসব স্থান দিয়ে চলাচলেও সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল আওয়াল দৈনিক আমাদের কন্ঠ কে বলেন, যেসব স্থানে ফুটপাত দখল হয়ে আছে তার তালিকা তৈরি করার প্রক্রিয়া চলছে। শিগগিরই এসব অবৈধ কার্যক্রম বন্ধ করতে অভিযান পরিচালনা করা হবে। যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম মোয়াজ্জেম হোসেন দৈনিক আমাদের কন্ঠ কে বলেন, শুধুমাত্র সড়ক বিভাগের একার পক্ষে এ দখল অপসারণ সম্ভব নয়। এর জন্য জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে অনেক স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে হবে। তবে শুধু আইন করলে চলবে না। এ ব্যাপারে গণসচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *