,

সংবাদ শিরোনাম :

বিএনপি ভোট ছাড়াই ক্ষমতায় যেতে চায়: নাসিম

ডেস্ক রিপোর্ট : ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, সামনে নির্বাচন; তাই আবারও চক্রান্ত শুরু হয়েছে। বিএনপি ভোট ছাড়াই ক্ষমতায় যেতে চায়। এজন্য তারা নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত করছে। কিন্তু নির্বাচন হবে। নির্বাচন কেউ ঠেকাতে পারবে না।

মঙ্গলবার রাজশাহী নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে ১৪ দল আয়োজিত বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নাসিম বলেন, বিএনপিকে বলব- নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হোন। আমরা বিনা খেলায় গোল দিতে চাই না, মাঠে খেলে গোল দিতে চাই। বিশ্বকাপে মেসি, নেইমার গোল মিস করতে পারে। কিন্তু শেখ হাসিনা গোল মিস করবেন না। সংবিধান অনুযায়ী সঠিক সময়েই নির্বাচন হবে। নির্বাচনে যদি বিএনপি অংশ না নেয়, তাহলে তাদের বাটি চালান দিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না।

তিনি বলেন, ১০ বছর দল ক্ষমতায় আছে। মন্ত্রী, এমপি, নেতাকর্মীদের ভুল হতে পারে। কিন্তু শেখ হাসিনা কাউকে ক্ষমা করেননি। ভুল করলে শাস্তি হয়েছে। তাই জনগণ আবার শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করবেন। দেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসাবেন।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ১৪ দলের ভেতর কোনো বিভেদ নেই। সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচনে অংশ নেবে। আগামী নির্বাচনেও ১৪ দলের প্রার্থীরা বিজয়ী হবেন। দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মানুষ তাদের নির্বাচিত করবেন। যারা দেশে জ্বালাও-পোড়াও করে জনগণ তাদের সঙ্গে নেই।

ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বলেন, সামনের নির্বাচনে সিদ্ধান্ত নিতে হবে আমরা কোন দিকে যাব। সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে না পারলে আমরা পিছিয়ে যাব। বিএনপি-জামায়াত জোটের সময় রাজশাহী অঞ্চলে উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তি বাংলা ভাইয়ের উত্থান ঘটেছিল। ১৪ দলের নেতৃত্বাধীন সরকার ক্ষমতায় আসার পর এ অঞ্চল শান্তির জনপদে পরিণত হয়েছে। তাই উন্নয়ন এবং শান্তির চলমান ধারা অব্যাহত রাখতে ১৪ দলের প্রার্থীদের আবারও বিজয়ী করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ১৪ দলের বিরুদ্ধে একটি অপশক্তি ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু বর্তমান নির্বাচন কমিশন একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। অপশক্তি ভোট বানচালের চেষ্টা করলে তা শক্তভাবে প্রতিরোধ করবে ১৪ দল।

তিনি বলেন, রাজশাহীতে নৌকা দুর্জয় শক্তিতে পরিণত হয়েছে। ভোটাররা শেখ হাসিনার প্রার্থীকে বিজয়ী করে রাজশাহীর উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখবেন। জনসভায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া এবং সাম্যবাদী দলের সভাপতি দিলীপ বড়ুয়াও বক্তব্য দেন।

রাজশাহী ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন সদর আসনের এমপি ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এবং রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকসহ ১৪ দলের কেন্দ্রীয় এবং বিভাগের বিভিন্ন অঞ্চলের নেতারা জনসভায় উপস্থিত ছিলেন। রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার ও জাসদের আবদুল্লাহ আল মাসুদ শিবলী জনসভা পরিচালনা করেন।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *