,

সংবাদ শিরোনাম :

ফাইনালে ক্রোয়েশিয়া

ডেস্ক রিপোর্ট : ৫২ বছর পর ট্রফি জয়ের মিশনে এসে আবার পথ হারাল ইংল্যান্ড। প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেও জয় বঞ্চিত হল তারা। অপরদিকে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার ফাইনালে চলে গেল ক্রোয়েশিয়া। আগামী ১৫ জুলাই ফ্রান্সের বিপক্ষে ফাইনালে মাঠে নামবে তারা।
এদিন খেলা শুরুর পাঁচ মিনিটেই ১-০ গোলে এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড। কেইরান ট্রিপারের দুর্দান্ত ফ্রি-কিক গোলকিপার ড্যানিয়েল সুবাসিচকে ফাঁকি দিয়ে জড়ায় ক্রোয়েশিয়ার জালে। প্রথমার্ধে আরো দুটি সহজ সুযোগ পেয়েছিল ইংল্যান্ড। তবে গোলের ব্যবধান বাড়িয়ে নিতে ব্যর্ত হয় তারা। ২৯ মিনিটের মাথায় হ্যারি কেনের একটি অনবদ্য প্রয়াস দুরন্ত ক্ষিপ্রতায় প্রতিরোধ করেন সুবাসিচ। না হলে হাফ টাইমের আগেই লড়াই থেকে ছিটকে যেতে পারত ক্রোয়েশিয়া।
পরে খেলার ৬৯ মিনিটে সমতায় ফেরে ক্রোয়েশিয়া। ডানপ্রান্ত থেকে সিমে ভ্রাসালিকোর লম্বা ক্রস থেকে পা লাগিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন ইভান পেরিসিচ। কিছুক্ষণ পর দারুণ এক গোলের সুযোগ সৃষ্টি করেছিল ক্রোয়েশিয়া। ডানপ্রান্ত থেকে আন্তে রেবিচ দারুণ এক ক্লিয়ার করে সে যাত্রায় ইংল্যান্ডকে বাঁচান ক্রস জন স্টোনস। তবে ফিরতি বলে রেবিচ শট করলে পিকফোর্ড সহজেই তা আটকে দেন।
নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে খেলা শেষ করে দুদল। পরে ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। অতিরিক্ত সময়ের প্রথামার্ধে গোলের দেখা পায় না দুই দলের কেউই। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের ১০৯ মিনিটের মাথায় ২-১ গোলে এগিয়ে যায় লুকা মদ্রিচরা। ক্রোয়েশিয়ার পক্ষে এই গোল করেন মারিও মান্দজুকিচ। আর এই গোল থেকেই জয় নিশ্চিত হয় ক্রোয়েশিয়ার। এই জয়ের মধ্যে দিয়ে এই প্রথম বিশ্বকাপের ফাইনালে লুকা মদ্রিচরা।
এর আগে মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় ম্যাচটি শুরু হয়।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *