,

সংবাদ শিরোনাম :

দলীয় শৃঙ্খলার অভাবেই প্রতিরোধ গড়তে পারেনি বিএনপি’

ডেস্ক রিপোর্ট : দলীয় শৃঙ্খলার অভাবেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার নোয়াখালীতে আইনজীবী সমিতির মতবিনিময় সভায় দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে এ কথা বলেন তিনি।
এর আগে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সুবর্ণচরে ধর্ষিতা গৃহবধূকে দেখতে গিয়ে সরকারের সমালোচনা করেন মির্জা ফখরুল।বিএনপির মহাসচিবকে সামনে রেখেও অশান্ত দলীয় নেতাকর্মীরা। তাদের শান্ত করতে বারবার চেষ্টা করতে দেখা যায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে।
মির্জা ফখরুলের অনুরোধ করে বলেন, ‘এই তোমরা থামো। প্লিজ তোমরা থামো। এই শুধু স্লোগান দিলেই হবে না।’নোয়াখালীতে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূর আইনি সহায়তা নিশ্চিতের লক্ষে এ সভার আয়োজন করা হয়। এসময় ঐক্যফ্রন্টের নেতা বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, আ স ম আবদুর রবসহ বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এসময় দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মির্জা ফখরুল।
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সব নিয়ে গেছে। আপনারা কেউ বাঁধা দিতে পারেন নাই। কারণ আমরা সংখ্যায় অনেক, আবেগ অনেক। কিন্তু শৃঙ্খলা নেই। সারা বাংলাদেশে এটাই হয়েছে। কেন পারেননি, কারণ আমরা মরার আগেই মরে যাচ্ছি। কেন মরে যাচ্ছি আমরা? কেন রুখতে পারছি না আমরা। কারণ আমরা শৃঙ্খলা না রেখেই যুদ্ধ করে যাচ্ছি।’একই অনুষ্ঠানে ঐক্যফ্রন্ট নেতা আ স ম আবদুর রব বলেন, ‘দাবি আদায়ের লক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।’আ স ম রব বলেন, ‘আরো হামলা হবে, মামলা হবে। আমি একটা কথাই বলবো আমাদের আরো ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’
এরআগে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ধর্ষিতা গৃহবধূকে দেখতে যান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এসময় বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন, বরকত উল্লাহ বুলু, জয়নাল আবেদীন ফারুকসহ দলের স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। নির্যাতিতা গৃহবধূর স্বজনদের বিভিন্ন আশ্বাস দেন বিএনপি মহাসচিব।
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সন্ত্রাসের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে।’
নির্বাচনের পর বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতন বেড়েছে বলেও অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *